1. admin@crimenews24.net : cn24 :
  2. zpsakib@gmail.com : cnews24 :
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:১৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদের প্রতিকৃতিতে  চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের বিনম্র শ্রদ্ধা শুরু হলো পাঁচ দিনব্যাপী রাজশাহী বইমেলা  বই একটি সমৃদ্ধ জাতি এবং টেকসই ভবিষ্যৎ নির্মাণ করতে পারে-রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য  রাজশাহী হাই মাদরাসার পুকুর থেকে ভাঁসমান লাশ উদ্ধার ভিএস ও ভলেন্টেয়ারিং স্ট্যান্ডাড ইয়োথ ফোরাম খুলনা অঞ্চলের প্রশিক্ষন অনুষ্টিত রাজশাহীতে ভুট্রা ক্ষেতে থেকে এক নারীর লাঁশ উদ্ধার ইন্দুরকানীতে “ওপেন হাউজ ডে” অনুষ্ঠিত মৌলভীবাজারে পুলিশ সুপার ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত  মৌলভীবাজারে দুই সিএনজি’র মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ নিহত ২,গুরুতর আহত ৩ সিরাজগঞ্জ উল্লাপাড়ায় নিখোঁজের ৫ দিন পর শিশুর মরদেহ উদ্ধার, সৎ বাবাসহ দুই জন গ্রেপ্তার

আলমডাঙ্গায় একই বিদ্যালয়ে দুইজন ভুয়া শিক্ষক, বহাল তবিয়তে চালিয়ে যাচ্ছেন চাকরি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৬ মার্চ, ২০২৩
  • ৭৪ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার আলমডাঙ্গা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মনিরুজ্জামানের চাকরি জীবনটাই ভুয়া ও একই বিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারিক কুলছুম খাতুন জাল সনদ নিয়ে বহাল তবিয়তে চাকরি করে যাচ্ছেন।

প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান এর জন্মতারিখ ২৮/০৭/১৯৬৫, ইনডেক্স নং ২১৬৫২১. প্রধান শিক্ষক প্রথম চাকরিতে যোগদান করেন বাদে মাজু বাদল স্মৃতি একাডেমিতে ০১/০১/১৯৮৪ সালে এবং ১৯৮৪ সালে এইচ এস সি পাশ করেন। এরপর বেলগাছি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে দৈনিক সংগ্রাম পত্রিকার ২৮/০৭/১৯৯২ বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে নিয়োগ নেন।তারপর বেলগাছি বিদ্যালয়টি ০১/০৭/১৯৯৩ তারিখে এমপিওভুক্ত হন।

এরপর ১৫ বছরের অভিজ্ঞতা চেয়ে প্রথম আলো পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ভুয়া অভিজ্ঞতার সনদ নিয়ে ২৭/০২/২০০৫ হতে আলমডাঙ্গা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে যোগদান করেন।গত ১৫/০১/২০১৫ সালে বেলগাছি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ভুয়া অভিজ্ঞতার সনদের বিষয়ে প্রত্যয়ন দেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর এর ২৮/০৫/২০১৫ তারিখের পত্র মারফত জানা যায়, বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ২৯/০৮/২০১১ তারিখ থেকে সাময়িক বরখাস্ত হয়ে আছেন।বিগত ২২/১২/২০১৪ তারিখে মন্ত্রণালয়ের পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তরের অডিটে নিয়োগ সংক্রান্ত ত্রুটি কাগজ পত্রাদি ধরা পড়ায় স্থানীয় পত্রিকা দৈনিক নতুন খবর পত্রিকায় ২ দিন ধরে সরকারি উচ্চ পর্যায়ের অডিটে মেলেনি বৈধ কাগজপত্র আলমডাঙ্গা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামানের কর্ম জীবনটাই ছিলো ভুয়া শিরোনামে খবর প্রকাশিত হয়।প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সভাপতি বরাবর আবেদন প্রেরন করেন।তারপরও বহাল তবিয়তে চালিয়ে যাচ্ছেন চাকরি। এরপর চুয়াডাঙ্গা বিজ্ঞ যুগ্ম জেলা জজ আদালতে মামলা হয় ১৮/০৯/১৮ তারিখে, মামলাটি চলমান।

একই বিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারিক শিক্ষক কুলসুম খাতুন, ইনডেক্স নং N 1104505, এইচ এস সি জাল সনদ নিয়ে বহাল তবিয়তে চাকরি করে যাচ্ছেন বিগত ২০১০ সাল হতে।অত্র বিদ্যালয় হতে গত ২৪/০১/২০১৯ তারিখে কুলছুম খাতুনের এইচএসসি সনদ যাচাইয়ের জন্য সোনালী ব্যাংকের টাকা জমা দিলে সনদ যাচাই হয়।সেখানে তথ্য আসে তিনি রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের কুড়িগ্রাম জেলার একটি কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের মতিয়ার রহমানের নামে অকৃতকার্য ছাত্রের রোল নং ১২১৯৯৪ ব্যবহার করে। যা রাজশাহী শিক্ষা ডেপুটি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ২০১৯ সালে verified and found not correct সীল ও স্বাক্ষর দ্বারা জাল প্রমানিত হয়।

এছাড়াও উক্ত রোল নম্বর অনলাইনে যাচাই করলে কোন তথ্য পাওয়া যায় নি।

এছাড়াও তিনি ভুয়া মাতৃত্বকালীন ছুটি নিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সরেজমিনে তদন্তে গেলে প্রধান শিক্ষক বলেন, আমাকে আত্তীকরণের মাধ্যমে একটি রেজুলেশনের মাধ্যমে বেলগাছি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ০১/০১/১৯৮৯ সালে যোগদান করি এবং অর্থনৈতিক ও অন্যান্য কারনে আমি বরখাস্ত হয়েছিলাম।মামলার বিষয়ে বলেন একটি মামলার রায় আমি পেয়েছি এবং আরেকটি মামলা চলমান আছে।

গ্রন্থাগারিক শিক্ষক কুলসুম খাতুনের সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক বলেন,তার কোন কাগজপত্র আমার অফিসে নাই।সনদ জালের বিষয়ে আমি জানি কিন্তু কেউ অভিযোগ করে না বলে আমি কিছু করতে পারিনি। জাল সনদের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কুলছুম খাতুন বলেন,যে রোল নম্বর সম্বলিত ভুয়া সনদ সেটি আমার নই,তাহলে আপনার সঠিক সনদ কোথায় আছে বললে,তিনি কোন সনদ দেখাতে পারেন নাই।তিনি বার বার মাস্টার্স পরীক্ষার সনদ দেখাতে চেয়েছেন।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর ....
© All rights reserved © 2022 crimenews24.net
Design & Developed By : Anamul Rasel