1. admin@crimenews24.net : cn24 :
  2. zpsakib@gmail.com : cnews24 :
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঝিনাইদহে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে রক্ষা পেল ১৭৯টি হতদরিদ্র পরিবারের সূলভ মূল্যের চালের কার্ড শ্রীমঙ্গলে স্কুলছাত্রীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার  শারদীয় দুর্গাপূজা-২০২২ উপলক্ষে নিরাপত্তা সংক্রান্ত সভা অনুষ্ঠিত সাতক্ষীরা থেকে বিদেশী পিস্তলসহ ১ জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৬ বিমান বহরে যুক্ত হলো দ্বিতীয় কাসা-সি ২৯৫ ডব্লিউ সামরিক বিমান ক্ষমতাসীনরা জনতাকে ‘শুয়োরের বাচ্চা’ বলে : মোমিন মেহেদী চুয়াডাঙ্গায় বিভিন্ন পূজামন্ডপ পরিদর্শন করলেন পুলিশ   সুপার আব্দুল্লাহ্ আল-মামুন মৌলভীবাজারে গরিব ও মেধাবী  শিক্ষার্থীদের মাঝে  শিক্ষাবৃত্তি প্রদান  দিনাজপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়  সদস্য নির্বাচিত হলেন বিপ্লব বিশ্ব নদী দিবস উপলক্ষে মৌলভীবাজারে আলোচনা সভা ও বর্ণাঢ্য র‍্যালী

আইজিপি’র সহযোগিতায় সত্তরোর্ধ্ব মনিজা বেওয়ার মুখে তৃপ্তির হাসি

মোঃ সাকিব হাসানঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ২৫ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

মনিজা বেওয়া। সত্তরোর্ধ্ব এ গৃহহীন বৃদ্ধার একেকটি দিন যেন কাটে চরম দুর্দশায়। জীবনের পড়ন্তবেলায় এখন যার একমাত্র ভরসা নাতনি আখিঁ আক্তার। মনিজা বেওয়ার স্বামী-সন্তান কেউই বেঁচে নেই। স্বামীকে হারিয়েছেন প্রায় ২০ বছর আগে। নাতনি আঁখি আক্তারও বিধবা। নানি-নাতনির কষ্ট আর দুর্দশা যেন সিনেমার গল্পকেও হার মানায়।

রংপুরের মিঠাপুকুর থানার অন্তর্গত দৌলতপুরে ছিল মনিজা বেওয়ার সুখের সংসার। স্বামী আফছার আলী অন্যের জমিতে কৃষিকাজ করে সংসার চালালেও জীবনে তৃপ্তি ছিল, ছিল আস্থা আর পরষ্পরের প্রতি অগাধ ভালবাসা। চলে যাচ্ছিল জীবন সংসার। হঠাৎ ছন্দপতন। মনিজা বেওয়া তার জীবনসঙ্গিকে হারান প্রায় ২০ বছর আগে। বেঁচে ছিলেন একমাত্র মেয়ে। তিনিও সন্তান প্রসবের সময় মারা গেছেন।

সরকার থেকে বয়স্কভাতা পেলেও সেই টাকা দিয়ে বিধবা নানি-নাতনির সংসার চালানো দুষ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে। কোথায় থাকবে, সেই ঠিকানা নিশ্চিত ছিল না। ভিক্ষাবৃত্তিতে কোনো রকমে দিনপার হলেও রাতে মাথা গোঁজার ঠাঁই ছিল অন্যের রান্নাঘরে। দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী এক ভাতিজার আশ্রয়ে রান্নাঘরে নাতনিকে নিয়ে দুর্বিষহ জীবনযাপন করেছেন মনিজা বেওয়া। ঘরে থাকার মতো পরিবেশ ছিল না। ভাঙা-চোরা টিন দিয়ে তৈরি ঘরটি। নেই দরজা-জানালা। মাঝে মধ্যে ওই ঘরে গরু রাখা হয় । কখনো খেয়ে বা না খেয়ে কোনো মতে বৃদ্ধা ও তার নাতনির জীবন কাটছিল নিদারুণ কষ্টে। সরকার থেকে বয়স্কভাতা পেলেও সেই টাকা দিয়ে বিধবা নানি-নাতনির সংসার চালানো দুষ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছিল।

গত ০৮ আগস্ট, ২০২২ খ্রিঃ একটি পত্রিকায় মনিজা বেওয়া ও আখিঁ আক্তারকে নিয়ে ‘বিধবা নাতি-নাতনির মানবেতর জীবন’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে তা নজরে আসে বাংলাদেশ পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি (পুনাক) এর সভানেত্রী জীশান মীর্জার। পুনাকের সভানেত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেবার পর অসংখ্য অসহায়ের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি। এবারও বাদ পড়েনি মনিজা বেওয়া। তিনি বিষয়টি ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ, বাংলাদেশ ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার) এর নজরে আনলে সহযোগিতার ব্যবস্থা করে দেন তিনি।

মনিজা বেওয়ার জন্য ০৩ (তিন) বছর মেয়াদে ১৭.৫০ শতক জমি বন্ধকের ব্যবস্থা করেছেন। সে লক্ষ্যে জমি বন্ধকের টাকা প্রদান করেছেন আইজিপি মহোদয়। এখন নানি-নাতনি জমিটিকে কাজে লাগিয়ে আয়ের সংস্থান করতে পারবেন। মনিজা বেওয়ার মুখে এখন হাসি ফুটেছে। পেয়েছেন নির্ভরতার জায়গা, স্বস্তি আর ভরসা। আজ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রিঃ পুনাক সভানেত্রী জীশান মীর্জা রংপুরে গিয়ে মনিজা বেওয়ার হাতে তুলে দিয়েছেন জমির বন্ধক নামার দলিল। ভালো থাকুক মনিজা বেওয়া, সুখে থাকুক তার নাতনি আঁখি আক্তার।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর ....
© All rights reserved © 2022 crimenews24.net
Design & Developed By : Anamul Rasel